স্টাফ রিপোর্টার : মাত্র ২ হাত জমি পাওনাদার দাবি করে রায়পুর উপজেলার ১০নং ইউনিয়নের কাজীর চর গ্রামের আবুল বাশার (৩৫) নামক হত দরিদ্র এক দিনমজুর ও তার পরিবারকে মিথ্যা মামলায় হয়রানির অভিযোগ করেছেন তারই প্রতিবেশী প্রভাবশালী সিরাজ (৬৭) মিয়ার বিরুদ্ধে ।

অভিযোগকারী ও ভুক্তভোগী ঐ দিনমজুর আবুল বাশার জানান, দীর্ঘ দিন ধরে তারই পাশ্ববর্তী  ফরাজী বাড়ির প্রভাবশালী সিরাজ মিয়া,পিতা – মৃত আলী আহাম্মদ,সাং- কাজীর চর,৯নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা তার বসত ভিটার ভিতরে ২ হাত জায়গা পাওনা বলে দাবি করে আসছে, এবং দাবিকৃত জায়গা তাদেরকে বুঝিয়ে দেওয়ার জন্য বিভিন্ন সময় হুমকি-ধমকিসহ কোর্টে মিথ্যা মামলা দিয়েও হয়রানির অভিযোগ করেন তিনি । এমনকি চুরি – ডাকাতিসহ বিভিন্ন মিথ্যা নাটক সাজিয়ে তাকে (আবুল বাশার) এবং তার পরিবারের আর্থিক ক্ষতিসহ মানষিক ভাবেও তাকে হয়রানি করা হচ্ছে ! কিন্ত অসহায় বাশারের পরিবারের পক্ষে মামলা মোকদ্দমা চালানো সম্ভব নয়,এমনকি সিরাজের পরিবার থেকে দাবিকৃত সম্পত্তিও সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বলে দাবি করেন বাশার। মূলতঃ সিরাজ ও তার প্রবাসী সন্তানদ্বয় বাশারকে তার বসতকৃত জায়গা থেকে উচ্ছেদ করে উক্ত সম্পত্তি তাদের হস্তগত করার প্রয়াসে এই কু-বুদ্ধি এঁটেছেন বলে এই প্রতিবেদককে জানান বাশার। এ বিষয়ে জানতে সিরাজ ও তার স্ত্রীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা জমি পাওনার বিষয়টি অস্বিকার করেন,সিরাজ প্রতিবেশী মানুষ হিসেবে তেমন সুবিধার নয় বলে তারা জানান, এমনকি গত কয়েকবছর পূর্বে সিরাজের ঘর থেকে রাতের আঁধারে ৩৫ ভরি সোনার গহনা চুরি হয়ে যায় বলে তার স্ত্রী জানান,আর এই চুরির সাথে বাশার জড়িত বলে দাবি করেন তিনি। বিষয়টি মিমাংশার জন্য উল্লেখিত ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সফিউল আজম সুমন চৌধূরীর সাথে আলাপ করা হলে তিনি বলেন এলাকার শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে উভয় পক্ষ আমার সরনাপন্ন হলে আমি অবশ্যই তার সমাধান করার চেষ্টা করবো । এরপর ভুক্তভোগী বাশারের পরিবার থেকে সমস্যা সমাধানের জন্য চেয়ারম্যানের ধারস্থ হলেও সিরাজ মিয়া তার ব্যাক্তিগত প্রভাবের উপর ভর করে বিষয়টিকে কোন প্রকার গুরুত্ব না দিয়ে নিজেকে সরিয়ে রেখেছেন বলে জানাযায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *