স্টাফ রিপোর্টার :
লক্ষ্মীপুরে আগামী ১৮ মার্চ থেকে শুরু হবে হাম-রুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইন। ৯ মাস থেকে ১০ বছরের কম বয়সী ৫ লাখ ৫৩ হাজার ১৭ শিশুকে এক ডোজ হাম-রুবেলা (এমআর) টিকা দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামী ১১ এপ্রিল টিকাদান ক্যাম্পেইন শেষ হবে। ক্যাম্পেইনটি দুই ভাগে পরিচালিত হবে। প্রথম ধাপে ১৮-২৪ মার্চ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এবং দ্বিতীয় ধাপে ২৮ মার্চ-১১ এপ্রিল সব নিয়মিত স্থায়ী টিকাদান কেন্দ্রে এ টিকা দেওয়া হবে। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ২ লাখ ২৬ হাজার ১৪, কমলনগরে ৬৫ হাজার ২ শত ৩, রামগঞ্জে ৮৭ হাজার ১ শত ২১, রামগতিতে ৮৫ হাজার ৮ শত ৯৬, রায়পুরে ৭৬ হাজার ৯ শত ৩৪ ও পৌরসভায় ৩৫ হাজার ২ শ ৪৯ শিশু এর আওতায় রয়েছে।
১৬ মার্চ সোমবার বিকেলে সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান সিভিল সার্জন ডাঃ আব্দুল গাফ্ফার। এসময় করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) প্রাদুর্ভাব রোধে জনসচেতনতা মূলক তথ্যাবলি ও করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝূঁকি রোধে করণীয় বিষয়গুলো উপস্থাপন করেন।
সিভিল সার্জন বলেন, আগে হাম বা এমআর টিকা পেয়ে থাকলেও কিংবা হাম-রুবেলা হলেও নির্দিষ্ট বয়সের সব শিশুকে এক ডোজ এমআর টিকা দেওয়া হবে। হাম-রুবেলা একটি ভাইরাসজনিত মারাত্মক সংক্রামক রোগ। হাম রোগ সাধারণত একজন আক্রান্ত রোগীর সংস্পর্শে আসা অন্যদের মধ্যে হাঁচি বা কাশির মাধ্যমে ছড়ায়। শিশু ছাড়াও যেকোনো বয়সে হাম হতে পারে। অন্যদিকে রুবেলা রোগের জীবাণু প্রধানত বাতাসের সাহায্যে শ্বাসতন্ত্রের মাধ্যমে সুস্থ শরীরে প্রবেশ করে এবং রুবেলা রোগের লক্ষণ দেখা দেয়। এসময় জেলার কর্মরত প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.