রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি ঃ
লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার ৮নং করপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মজিবুল হক মজিব ইউনিয়নবাসীর কল্যানের জন্য নিজের জীবন উৎসর্গ করতে রাজি। একে একে ২বার এলাকার দুঃখী ও মেহনতী জনগনের প্রত্যক্ষ ভোটে নির্বাচিত চেয়ারম্যান তিনি। সারা বিশ্বের ন্যায় বাংলাদেশে চলতি করোনা ভাইরাসের প্রার্দুভাব মোকাবেলায় স্থানীয় এমপি ড. আনোয়ার খানের দিকনির্দেশনা মোতাবেক মুজিব চেয়ারম্যান নিজ উদ্যোগে করপাড়া ইউনিয়নের ৩হাজার খেটে খাওয়া দরিদ্র মানুষদের খাদ্য সামগ্রী বিতরন ছাড়া সরকারীভাবে ৪হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

সোমবার সকালে করপাড়া ইউনিয়ন পরিষদে সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় চেয়ারম্যান মজিবুল হক মজিব এসব কথা বলেন।
স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, চেয়ারম্যান মজিবুলহক মজিব করপাড়া ইউনিয়নের কর্মহীন পরিবারের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে প্রত্যেক পরিবারকে চাল,ডাল,আলু,পেয়াজ,তেল বিতরন করেছেন। বর্তমানে এ ধারা এখনো অব্যাহত রয়েছে। সন্ত্রাসের জনপথ হিসেবে খ্যাত করপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নেওয়ার পর অবহেলিত করপাড়া ইউনিয়নকে সরকারী উন্নয়নের পাশাপশি রাস্তাঘাটসহ ভিবিন্ন অবকাঠামো উন্নয়ন অব্যাহত রেখে বর্তমানে মডেল ইউনিয়ন হিসেবে রুপান্তরিত করেছেন।

এছাড়াও চেয়ারম্যান মজিবুল হক মজিব সমাজসেবায় বিশেষ অবদানের জন্য জাতীয়ভাবে (নেলসন ম্যান্ডেলা) বিশেষ শান্তি পুরস্কার হিসেবে স্বর্ন পদক পুরস্কারে ভূষিত হওয়ার পাশাপাশি বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান সমতিরি সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এবং লক্ষ্মীপুর জেলার শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন।

চেয়াম্যান মজিবুল হক মজিব জানান, আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক। তার আদর্শকে বুকে লালন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ও আমাদের এমপি মহোদয় ড. আনোয়ার খানের অনুপ্রেরনায় আমি করপাড়া ইউনিয়নবাসীর সেবা করে যাচ্ছি। ভবিষ্যতেও প্রয়োজনে তাদের সেবা করার জন্য নিজের জীবন উৎসর্গ করতেও রাজি। তারা যেমন বর্তমানে আমার পাশে আছে ভবিষ্যতেও আমি তাদের পাশে চাই। কারন তাদের ভোটের কারনেই আমি পুরো করপাড়া ইউনিয়বাসীর সেবা করতে পারছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.