August 10, 2020, 2:33 am
শিরোনাম:
রায়পুর-ফরিদগঞ্জ সড়কে আনন্দ বাসের ধাক্কায় মটরসাইকেল আরোহী নিহত উইঘুর মুসলিম নারীদের ইলেক্ট্রিক শক দিয়ে গর্ভপাত করছে চীন সরকার চীনে নতুন ফ্লু ভাইরাস শনাক্ত, রয়েছে মহামারির শঙ্কা: বিবিসি লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন করোনায় আক্রান্ত। দৈনিক আমাদের লক্ষ্মীপুর এর সম্পাদক ও প্রকাশক বায়েজীদ ভূঁইয়া তাকে দেখতে যান।

করোনার এই দুর্যোগে মানুষের পাশে থাকতে চেয়েছিলাম কিন্তু এখন আমি গৃহবন্দি

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুর থেকে প্রকাশিত দৈনিক আমাদের লক্ষ্মীপুর পত্রিকার সম্পাদক এবং সাবেক বেসামরিক বিমান পরিবহন এবং পর্যটনমন্ত্রী একে এম শাহজাহান কামাল এমপির (এপিএস) বায়েজীদ ভূঁইয়ার বলেন প্রত্যাশা ছিল বর্তমান করোনা মোকাবেলায় মানুষের পাশে থাকবো কিন্তু আজ আমি নিজেই ঘরবন্দি। এই মহামারি থেকে মৃত্যুর ভয়ে ইচ্ছে করলে আমিও ঘরে থাকতে পারতাম।
ঘরে না থেকে প্রতিনিয়তই একে এম শাহজাহান কামালের পক্ষ থেকে দিন-রাত খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছি মানুষের ঘরে ঘরে। লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার মানুষদেরকে সহযোগীতা করেছি। গিয়েছি প্রত্যেক ইউনিয়নে। বৃহস্পতিবার সকালে এ প্রতিনিধি কে মোবাইল ফোনে এসব কথা বলেন বায়েজীদ ভূঁইয়া ।
তিনি আরও বলেন মহান আল্লাহর পরীক্ষা। আজ আমি করোনা পজেটিভ। থাকতে হচ্ছে ঘরের ভেতর। তাও একা একা। প্রতিটি মুহুর্তে যেন মনে হয় আমি কনডেম সেলে আছি।
করোনাতে নয় মানুষ তো মনোবল হারিয়ে মারা যাচ্ছে আমি মনে করি। যা আমিও এখন অনুভব করি। আর মনোবল রাখবো বা কিভাবে ? আমার সাত বছরের মেয়েও দূরে থেকে বলে আব্বু আই লাভ ইউ। জীবনে কত বন্ধু আছে তারা তো এখন কাছে আসার সাহস পাচ্ছে না এমনকি আত্মীয়-স্বজনও না।
একজন সুস্থ্য মানুষকে যদি এ পরিস্থিতিতে রাখা হয়, সে তো এমনিতেই মারা যাবে। এখন একমাত্র আল্লার উপর ভরসা করে আছি। কখন তিনি আমাকে মাফ করে দিবেন। সকলের দোয়া চাই আল্লাহর যেন আমাকে সুস্থ করে মানুষের কাছে যাওয়ার তৌফিক দান করেন।
উল্লেখ যে, একটু অসুস্থ অনুভব করায় গত ২ মে বায়েজীদ ভূঁইয়া করোনা পরীক্ষা করান। পরে ১০ মে চট্টগ্রাম থেকে তার রির্পোট পজেটিভ আসার পর তাকে রায়পুরের কোরোয়া নিজ বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

মো: রবিউল ইসলাম খান
লক্ষ্মীপুর
তারিখ-১৪.০২.২০২০ ইং



ফেসবুক পেইজ

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
২০,০২৩,০১৯
সুস্থ
১২,৮৯৭,৮১৫
মৃত্যু
৭৩৩,৯৭৬