March 2, 2024, 7:41 pm
ব্রেকিং :

৫২ বছরেও পাঁকা হয়নি বীর মুক্তিযোদ্ধার নামে সড়কটি

প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরের রায়পুর ও রামগঞ্জ সীমান্তবর্তী এলাকা পশ্চিম মাসিমপুর গ্রামে ৭০০ মিটার কাঁচা সড়ক ৫২ বছরেও পাঁকা হয়নি। এছাড়া সংস্কার না হওয়ায় চরম দুর্ভোগে গ্রামবাসী। জনপ্রতিনিধিরা প্রতিশ্রুতি দিলেও সড়কটির উন্নয়নে কেউ কোন পদক্ষেপ নিচ্ছেনা।স্থানীয়রা জানান, মুক্তিযুদ্ধে অবদানে স্বীকৃতি স্বরুপ এ সড়কটি নাম রাখা হয় বীর মুক্তিযোদ্ধা আক্তারুজ্জামানের নামে। জীবদ্দশায় এ সড়কটি পাকাকরণ দেখে যেতে পারেননি এই মুক্তিযোদ্ধা। সড়কটি দিয়ে প্রতিদিন ২ হাজারের বেশি পরিবারের লোকজন যাতায়াত করছে। বর্ষায় সড়কটি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। ছোট যান চলাচল তো দূরের কথা হেটে চলাও কষ্টকর হয়। বিকল্প সড়ক না থাকায় গ্রামবাসীদের বাধ্য হয়ে কাঁদা মাড়িয়ে যাতায়াত করতে হয়।

স্থানীয় বাসিন্দা আব্দুর রব মাষ্টার ও তাজুল ইসলাম বলেন, এই রাস্তাটির বয়স ৬০ থেকে ৭০ বছর। কত চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রতিশ্রুতি দিলেন। কিন্তু ভোটের পর আর কেউ আসেন না। বর্ষায় শিশুরা স্কুলে যেতে পারে না। কেউ অসুস্থ হলে হাসপাতালে নেয়া যায় না। বৃষ্টি হলে এক হাঁটু পানির কারণে বের হওয়া দূরহ। চিকিৎসার জন্য পাশে থাকা কমিউনিটি ক্লিনিকেও যাওয়া যায় না।

স্থানীয় ইউপি সদস্য ফজলুল কবির বলেন, স্বাধীনতার ৫২ বছর পার হলেও কাঁচা রাস্তাটি দিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে আমাদের। একাধিকবার ইউনিয়ন পরিষদে রাস্তাটি নিয়ে কথা বলে লাভ হয়নি।

চন্ডিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সামছুল ইসলাম সুমন বলেন, রাস্তাটির কারণে অনেক দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। গত বছর রাস্তাটির নামে আইডি করা হয়। গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা পাকা করার জন্য সংসদ সদস্যকে জানানো হয়।

রামগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মনির হোসেন চৌধুরী বলেন, দীর্ঘদিন ধরে অবহেলিত রাস্তাটি দ্রুতই পাকা করার ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



ফেসবুক পেইজ