August 10, 2020, 3:06 am
শিরোনাম:
রায়পুর-ফরিদগঞ্জ সড়কে আনন্দ বাসের ধাক্কায় মটরসাইকেল আরোহী নিহত উইঘুর মুসলিম নারীদের ইলেক্ট্রিক শক দিয়ে গর্ভপাত করছে চীন সরকার চীনে নতুন ফ্লু ভাইরাস শনাক্ত, রয়েছে মহামারির শঙ্কা: বিবিসি লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন করোনায় আক্রান্ত। দৈনিক আমাদের লক্ষ্মীপুর এর সম্পাদক ও প্রকাশক বায়েজীদ ভূঁইয়া তাকে দেখতে যান।

লক্ষ্মীপুরে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মানব সেবায় এগিয়ে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তারা

প্রতিনিধি,দৈনিক আমাদের লক্ষ্মীপুর:

লক্ষ্মীপুরে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মানব সেবায় এগিয়ে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা/পরিচালকরা।

সরকারের মাঠ পর্যায়ের প্রতিষ্ঠানসমূহের মধ্যে অন্যতম প্রতিষ্ঠান ইউনিয়ন পরিষদ। ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে সরকার বিভিন্নœ কার্যক্রম সহজে বাস্তবায়ন করে থাকে। চলমান করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবের ফলে দেশে যখন সব কিছু বন্ধ। সকলে আজ নিজেকে বাঁচাতে গৃহবন্দী। তখন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের সার্বিক তত্ত্ববধানে ইউনিয়ন পর্যায়ে কর্মহীন খেটে-খাওয়া দিনমজুর, অসহায় ও নিম্ন আয়ের পরিবারের তালিকা ও বিদেশ ফেরতের তালিকা তৈরির কাজ শুরু করে ইউনিয়ন পরিষদ।

ত্রাণ বিতরণ থেকে শুরু করে এসব তালিকা কম্পিউটারাইজকরণসহ করোনা ভাইরাস বিস্তার রোধে জনসচেতনতা সৃষ্টি, বিভিন্ন তথ্য আদান-প্রদান, সরকারি সকল রিপোর্ট/প্রতিবেদন প্রেরণ, প্রচার-প্রচারনাসহ সরকারের নির্দেশনা মোতাবেক প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের এ সময় জীবনে মায়া ত্যাগ করে নিজের উপর অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করে আসছে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা/পরিচালকবৃন্দ।
কিন্তু দু:খের বিষয় হলেও সত্য দেশের এ পরিস্থিতিতে বেতন-ভাতাবিহীন এসব উদ্যোক্তা/পরিচালকবৃন্দ তাদের পরিবার-পরিজনদের অনেকটা অনাহারে দিন কাটাতে হচ্ছে। তাদের এ অসহায়ত্ব মুহুর্তে তারা সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের সহযোগিতা এবং প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের এ সংকটময় মুহুর্তে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা/পরিচালকবৃন্দের স্বাস্থ্য সুরক্ষা কামনা করছেন।

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চরশাহী ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা/পরিচালক ও বাংলাদেশ ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার পরিচালক ফোরাম, লক্ষ্মীপুর জেলা শাখার সভাপতি জনাব মো: মিজান উদ্দিন সোহাগ জানান যে, দেশের এই সংকটময় মুহূর্তে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মানবতার সেবা করে যাচ্ছে। কিন্তু তাদের সুরক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণ তারা এখনো পায়নি।
একই উপজেলার শাকচর ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা/পরিচালক ও বাংলাদেশ ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার পরিচালক ফোরাম, লক্ষ্মীপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ সেকান্তর আলী জানান, দেশে করোনা সংকট থেকে মুক্ত হলে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা/পরিচালকবৃন্দের প্রাণের দাবি মহামান্য হাইকোর্টের আদেশের আলোকে চলমান হিসাব সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর পথে সরাসরি নিয়োগ প্রদান অথবা বেতন ভাতাসহ জাতীয়করণ চায়। বিষয়টি ভেবে দেখার জন্য সরকারের নিকট জোর দাবী জানান লক্ষ্মীপুরের উদ্যোক্তা/পরিচালকরা।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়ন পরিষদের সচিব জানান, করোনা ভাইরাসের সময় পরিষদের চেয়ারম্যান, সচিব, গ্রাম পুলিশ সহ অন্যান্যদের পাশাপাশি উদ্যোক্তা/পরিচালকরা কাজ করে যাচ্ছে এটা সত্য।

এ ব্যাপারে উপজেলা পরিষদ সূত্র জানায়, উপকরণ সংকট ও লোকজন বেশী থাকার কারণে উদ্যোক্তা/পরিচালকদের জন্য সুরক্ষা সামগ্রী প্রত্যেককে দেওয়া সম্ভব হয়নি। তবে ইউপি চেয়ারম্যানদের নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে পরিষদের সকল কর্মকর্তা, কর্মচারীর সুরক্ষার ব্যবস্থা করা তার পরও তারা না পাওয়ায় বিষয়টি দু:খ জনক।



ফেসবুক পেইজ

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
২০,০২৪,২৬৩
সুস্থ
১২,৮৯৮,২৩৮
মৃত্যু
৭৩৩,৯৯৫